পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন কন্ডিশনাল স্টেটমেন্ট (১ম পর্ব)

পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন কন্ডিশনাল স্টেটমেন্ট (১ম পর্ব)

পাইথন কন্ডিশনাল

পাইথন প্রোগ্রামিং – কন্ডিশনাল স্টেটমেন্ট (১ম পর্ব) তে প্রথমেই আমরা জানবো কিভাবে একটি প্রোগ্রাম লজিক দিয়ে কম্পিউটারকে নানান নির্দেশনা দিয়ে থাকে। পাইথন কন্ডিশনাল লজিক ব্যবহার করে আমরা সহজেই অনেক জটিল সমস্যার সমাধান করতে পারি।

কন্ট্রোল স্টেটমেন্ট

একটি প্রোগ্রাম কোন ক্রমে কাজ করবে তা নির্ধারণ করে কন্ট্রোল স্টেটমেন্ট। প্রোগ্রামিং থেকে আমরা তখনই মজা পাবো যখন একটি প্রোগ্রাম বিভিন্ন লজিক চেক করে, তা অনুযায়ী কাজ করবে। এই লেকচারে কন্ট্রোল স্টেটমেন্ট এর মধ্যে পাইথন কন্ডিশনাল নিয়ে আলোচিনা করবো। পাইথন প্রোগ্রামিং ভাষায় মূলত দুইটি ধরণের কন্ট্রোল স্টেটমেন্ট ব্যবহার করা হয় :

ক) কন্ডিশনাল
খ) লুপ

কন্ডিশনাল (Conditional)

কন্ডিশনালের মধ্যে আমরা if, elif (else if) এবং nested if নিয়ে আলচনা করবো কয়েকটি পর্বে। এই পর্বে থাকছে কন্ডিশনাল নিয়ে বিশদ আলোচনা। 

ইফ কন্ডিশনাল (if Conditional)

if সর্বদা true অথবা false শর্তযাচাই করে , যদি condition true হয় তবে if-এর জন্য যেই স্টেটমেন্ট তা আউটপুটে দেখায়, অন্যথায় else এর জন্য যেই স্টেটমেন্ট তা আউটপুটে দেখাবে।

একটি if সাধারণত নিচের মত করে লেখা হয়:

if BOOLEAN EXPRESSION:
    STATEMENTS_1;
else:
    STATEMENTS_2;

এখানে if এর পর যেই BOOLEAN EXPRESSION লেখা আছে, আসলে তা হচ্ছে একটি Condition, যা নির্ধারন করে if এর স্টেটমেন্ট অথবা else এর স্টেটমেন্ট execute করবে।

উদাহরণ: জোড় অথবা বিজোড় নির্নয় করার প্রোগ্রাম 
If…else বোঝার জন্য কোনো একটি সংখ্যা জোড় অথবা বিজোড় কিনা বের করার একটা প্রোগ্রাম দেখি:

num = 12
if num%2==0:
    print(“The number is Even.”)
else:
    print(“The number is Odd.”)

উপরের প্রোগ্রামে প্রথমে ভেরিয়েবল num-এর ভেতরে একটি সংখ্যা রাখা হয়েছে। এখন if-এর মাঝের কণ্ডিশন এ যাচাই করবে num-এর মধ্যে রাখা সংখ্যা কে 2 দ্বারা ভাগ করলে ভাগশেষ শূন্য হয় কিনা (আমরা জানি কোনো সংখ্যাকে অপর কোনো সংখ্যা দিয়ে ভাগ করলে ভাগশেষ কত হবে তা জানার জন্য পাইথন প্রোগ্রাম এ আমরা মডুলাস অপারেটর, % ব্যবহার করি, বিস্তারিত আগেই আলোচনা করা হয়েছে), যদি শূন্য হয় তাহলে if-এর মাধ্যে থাকা কন্ডিশন সত্য। তাই কম্পাইলার if-এর জন্য বরাদ্দকৃত স্টেটমেন্ট execute করবে। আর যদি if-এর কন্ডিশন সত্য না হয় তাহলে else-এর জন্য বরাদ্দকৃত স্টেটমেন্ট execute করবে। যখন আমরা num এর মধ্যে 12 রাখবো তখন 12 কে 2 দ্বারা ভাগ করলে ভাগশেষ ০ হবে তাই if-এর মাঝের কন্ডিশন সত্য হবে এবং print() দ্বারা আউটপুটে The number is Even. দেখাবে। আবার যখন 5 রাখবো তখন 5 কে 2 দ্বারা ভাগ করলে ভাগশেষ 1 হবে, অর্থাৎ if-এর কন্ডিশন সত্য হবে না তাই তাই else-এর স্টেটমেন্ট execute করবে। else-এর মাঝের print() দ্বারা আউটপুটে The number is Odd. দেখাবে।

if এবং else যে লাইনে বিদ্যমান ঐ লাইনের শেষে অবশই কোলন (:) দিতে হবে। ifএবং else-এর স্টেটমেন্টগুলো অবশ্যই if/else এর এক ট্যাব পরে লিখবে হবে। অন্যথায় স্টেটমেন্ট ওভ/বষংব এর অংশ বুঝাবে না। কোন লাইনের পূর্বে কীবোর্ডের ট্যাব (ঞধন) বাটন প্রেস করলেই ঐ লাইন এক-ট্যাব পরে সরে যাবে।
এখন যদি আগেই num চলকের মধ্যে কোন না রেখে কীবোর্ড থেকে তুমি কোন সংখ্যা ইনপুট দিতে চাও, সেক্ষেত্রে একটি intput() ফাংশন ব্যবহার করতে হবে। যেহেতু আমরা পূর্নসংখ্যা ইনপুট নিবো, তাই আমাদের “Type converter functions” হিসেবে input() ফাংশনের পূর্বে int() ব্যবহার করতে হবে।

প্রোগ্রাম দেখি:

num = int(input(“Enter a number: “))
if num%2==0:
    print(“The number is Even.”)
else:
    print(“The number is Odd.”)

পাইথন প্রোগ্রামিং – সূচিপত্র ( টিউটোরিয়াল সমূহ ) –


সি প্রোগ্রামিং শেখার বাংলা বই “সহজে শিখি সি প্রোগ্রামিং” – এর ইবুক (পিডিএফ) পেতে ক্লিক করুন। বিকাশের মাধ্যমে সর্বনিম্ন ১০০ টাকা পরিশোধ করার মাধ্যমে সংগ্রহ করে নিন এই বইটি। 

পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন ডাটা টাইপ পরিবর্তন

পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন ডাটা টাইপ পরিবর্তন

মনে করো প্রোগ্রামের এর কোন অংশে কোন data পূর্ণসংখ্যায় আছে তা ভগ্নাংশে নিতে চাও, বা কোন সংখ্যাকে স্ট্রিং হিসেবে ব্যবহার করতে চাও, এই কাজ গুলো সহজেই করা যায়। যেমন কোন ডাটা যদি int – এর মধ্যে লিখি তাহলে তা পূর্ণসংখ্যা রিটার্ন করবে। যেমন-

>>> int(2.39)

2

এখানে যেহেতু পূর্ণসংখ্যায় প্রকাশ করা হয়েছে তাই দশমিকের পরের অংশ বাদ যাবে।

কোন সংখ্যাকে স্ট্রিং-এ প্রকাশ করার জন্য সংখ্যাটি str এর মধ্যে লিখতে হবে। যেমন-

>>> str(123)

‘123’

>>> str(120.34)

‘120.34’

>>> str(4903.021)

‘4903.021’

 

পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন ডাটা টাইপ পরিবর্তন

পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন ডাটা টাইপ যাচাই করা

পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন ডাটা টাইপ যাচাই করা

এখন কোন সংখ্যা Integer Number অথবা Float Number ? কোনটি Strings, কোনটি Lists ? এসব জানার জন্য পাইথনে type নামে একটি ফাংশন আছে। type ফাংশন এর মধ্যে আমরা যেই ডাটার class বা type জানতে চাই তা লিখে দিলেই প্রদত্ত ডাটার class দেখাবে। পাইথন ডাটা টাইপ যাচাই করার কয়েকটি কোড দেখানো হলো –

>>> type(123)
<class ‘int’>
>>> type(35.50)
<class ‘float’>
>>> type(‘Hello Friends’)
<class ‘str’>
>>> type(”’Arifuzzaman Faisal”’)
<class ‘str’>
>>> type(“123”)
<class ‘str’>
>>> type([1,2,3,4,5])
<class ‘list’>
>>> type([“Imran”,”GSC”,”CSE”,2013])
<class ‘list’>

এখানে integer বা পূর্ণসংখ্যার জন্য class ‘int’ প্রদর্শন করে, float বা ভগ্নাংশের জন্য class ‘float’ প্রদর্শন করে, স্ট্রিং এর জন্য class ‘str’ এবং লিস্ট এর জন্য class ‘list’ প্রদর্শন করে। অর্থাৎ কোন ডাটা পাইথনে বৈধ কিনা/ ডাটার টাইপ/ক্লাস কি তা জানার জন্য ঐ ডাটা type ফাংশন এর মধ্যে লিখে দিলে এবং ডাটা পাইথনে বৈধ হলে প্রদত্ত ডাটার class দেখাব্ল, অন্যথায় error প্রদর্শন করবে।

পাইথন প্রোগ্রামিং – সূচিপত্র ( টিউটোরিয়াল সমূহ ) –


পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন ডাটা টাইপ – Lists

পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন ডাটা টাইপ – Lists

পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন ডাটা টাইপ – Lists

লিস্ট হচ্ছে একটি ক্রমে কতগুলো মান এর একটি সংকলন, যাদের একটি সাধারণ নাম থাকে। তুমি যদি সি প্রোগ্রামিং এর অ্যারের সাথে পরিচিত থাকো তাহলে লিস্ট সহজেই বুঝতে পারবে, লিস্ট সি প্রোগ্রাম এর এক মাত্রিক অ্যারের মতই, শুধু গঠন পার্থক্য বিদ্যমান। যেমন একটি লিস্ট লিখবো number, যার উপাদান গুলো 1,2,3,4,5 । পাইথনে লিস্টের উপাদানগুলো তৃতীয় বন্ধনীর মধ্যে কমা দ্বারা একটির পর আর একটি লিখতে হয়। নিচের মত করে তোমার Python interpreter – এ number = [1,2,3,4,5] লিস্টটি লিখো।

>>> number = [1,2,3,4,5]
>>> number
[1, 2, 3, 4, 5]

এখানে নামের একটি লিস্ট নিয়েছি যার উপাদান গুলো 1,2,3,4,5। লিস্টের উপাদানগুলো আলাদা আলাদা ভাবে ব্যবহারের জন্য number[0], number[1], number[2], number[3] এবং number[4] লিখতে হবে। এখানে লিস্টের নামের পর তৃতীয় বন্ধনীর মধ্যে উপাদানের অবস্থান লিখে দিতে হয়, এই অবস্থান সংখ্যাকে ইনডেক্স বলে। অর্থাৎ কোন লিস্টের একটি উপাদান ডিক্লেয়ার করলে ঐ লিস্টের নাম এর সাথে তৃ্তীয় বন্ধনীর মাঝে উপাদানের অবস্থান (ইনডেক্স) লিখতে হয়। এই ইনডেক্স এর মান শুন্য [0] থেকে শুরু হয়। অর্থাৎ উপরের number লিস্টের প্রথম উপাদানের জন্য ইন্ডেক্স [0], দ্বিতীয় উপাদানের ইন্ডেক্স [1], তৃতীয় উপাদানের ইন্ডেক্স [2], এভাবে শেষ উপাদানের ইন্ডেক্স [list_size – 1] হবে। নিচের উদাহরণ দেখো-

>>> number = [1,2,3,4,5]
>>> number[0]
1
>>> number[1]
2
>>> number[2]
3
>>> number[3]
4
>>> number[4]
5

পাইথন প্রোগ্রামিং – সূচিপত্র ( টিউটোরিয়াল সমূহ ) –


পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন ডাটা টাইপ – Strings

পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন ডাটা টাইপ – Strings

পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন ডাটা টাইপ – Strings

পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন ডাটা টাইপ – Strings নিয়ে এই লেকচারে আলোচনা করা হবে। যে কোন প্রোগ্রামিং ভাষার মত পাইথনেও স্ট্রিং এর গুরুত্ব অনেক। তাই স্ট্রিং সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা থাকতে হবে। পাইথনে single quotes (‘ ‘) অথবা double quotes (” “) এর যে কোন একটির মধ্যে স্ট্রিং লিখতে হয়। যেমন- নিচের মত করে স্ট্রিংগুলো তোমার Python interpreter – এ লিখে enter প্রেস করো।

>>> “Hello Python”
‘Hello Python’
>>> ‘Bangladesh’
‘Bangladesh’
>>> “Hello World’
SyntaxError: EOL while scanning string literal

পাইথনেও স্ট্রিং লেখার জন্য single quotes (‘ ‘) অথবা double quotes (” “) এর যে কোন একটি ব্যবহার করতে হবে, তাদের সংমিশ্রণ করা যাবে না। যেমন উপরের শেষ স্ট্রিং (“Hello World’) –এ প্রথমে double quotes (” “) পরে single quotes (‘ ‘)- এর সংমিশ্রণের জন্য Python interpreter এখানে “Syntax Error” দেখায়।

এখন স্ট্রিং-এ উদ্ধৃতি চিহ্ন যদি আউটপুটে দেখাতে চাও সেক্ষেত্রে ঐ স্ট্রিং এর আগে ব্যাকস্লাস (\) দিতে হবে। যেমন-

>> ‘doesn\’t’
“doesn’t”
>> ‘”What is your name”, he asked.’
‘”What is your name”, he asked.’

তিনটি single quotes/ double quotes এর মধ্যেও পাইথনে স্ট্রিং লেখা যায়। যেমন-

>>> “””I am Anjan Das”””
‘I am Anjan Das’
>>> ”’I am Kawsar Hamid”’

‘I am Kawsar Hamid’

পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন ডাটা টাইপ – Strings

পাইথন প্রোগ্রামিং – সূচিপত্র ( টিউটোরিয়াল সমূহ ) –


সি প্রোগ্রামিং শেখার বাংলা বই “সহজে শিখি সি প্রোগ্রামিং” – এর ইবুক (পিডিএফ) পেতে ক্লিক করুন। বিকাশের মাধ্যমে সর্বনিম্ন ১০০ টাকা পরিশোধ করার মাধ্যমে সংগ্রহ করে নিন এই বইটি। 

পাইথন প্রোগ্রামিং – অ্যারিথমেটিক অপারেটর

পাইথন প্রোগ্রামিং – অ্যারিথমেটিক অপারেটর

পাইথন প্রোগ্রামিং – কয়েকটি অ্যারিথমেটিক অপারেটর

যোগ করার জন্য + অপারেটর
বিয়োগ করার জন্য – অপারেটর
গুন করার জন্য * অপারেটর
ভাগ করার জন্য / অপারেটরপাওয়ার এর জন্য ** অপারেটরভাগশেষ বের করার জন্য % ব্যবহার করা হয়।

অ্যারিথমেটিক অপারেটরের অগ্রগণ্যতা (Rules of precedence)

আরিথমেটিক অপারেটরের অগ্রগণ্যতা কোন গাণিতিক এক্সপ্রেশনে একাধিক অপারেটর থাকলে কোন অপারেটর আগে বা পরে কাজ করবে তা নির্ধারণ করে। যে কোন প্রোগ্রামিং ভাষার জন্য অপারেটরের অগ্রগণ্যতা অনেক গুরুত্বপূর্ণ । কেননা তুমি যদি অগ্রগণ্যতা ভুল করো তাহলে তুমি যা প্রত্যাশা করবে প্রোগ্রাম এর আউটপুটে তা আসবে না। নিচে কয়েকটি উদাহরণ দেখি –

উদাহরণ-

নিচের কোনটি সঠিক ?

ক)

>>> 2 + 3 * 2
10

এখানে 2 এর সাথে 3 যোগ করে পাওয়া যায় 5 । এই 5 এর সাথে 2 গুণ করলে 10 পাওয়া যাবে।

খ)

>>> 2 + 3 * 2
8

এখানে 3 এর সাথে 2 গুণ করলে পাওয়া যায় 6 । এই 6 এর সাথে 2 যোগ করলে 8 পাওয়া যাবে।

 

উপরে (খ) সঠিক। আমরা গনিতে এই আরিথমেটিক অপারেটরগুলোর যেই অগ্রগণ্যতার ক্রম অনুসরণ করে চভথাকি পাইথনে আরিথমেটিক অপারেটর সেই অগ্রগণ্যতার ক্রম অনুসরণ করতে হবে। অর্থাৎ এখানে গুণ এর কাজ আগে করতে হবে। কারন গুণ অপারেটর এর অগ্রগণ্যতার ক্রম যোগের উপরে।

উদাহরণ-

চল আরো একটি গাণিতিক সমস্যা দেখি 1 + 3 ** 2 * 2 এর মান কত হবে ?

>>> 1 + 3 ** 2 * 2
19

এখানে 3 এর ঘাত 2 করলে পাওয়া যায় 9 । এই 9 এর সাথে 2 গুণ করলে পাওয়া যাবে 18 এবং এর সাথে যোগ করলে পাবো। অর্থাৎ এক্ষেত্রে অগ্রগণ্যতার ক্রম পাওয়ার > গুণ > যোগ ।

এখানে যদি পাওয়ার আগে গুণের কাজ করতে চাই তাহলে কি করবো! সাধারণ গনিতে যেমন প্রথম বন্ধনীর কাজ আগে করতে হয়, তেমনি পাইথনেও প্রথম বন্ধনী ব্যবহার করে অগ্রগণ্যতার ক্রম “পাওয়ার > গুণ/ভাগ > যোগ/বিয়োগ” উপেক্ষা করা যায়। অর্থাৎ প্রথম বন্ধনীর মধ্যের অংশ আগে তারপর অন্যান্য আরিথমেটিক অপারেটরের অগ্রগণ্যতার ক্রম অনুসরণ করবে। যেমন –

>>> 1 + 3 ** (2 * 2)
82

এখানে প্রথম বন্ধনীর মধ্যের অংশ আগে তারপর অন্যান্য অংশ অগ্রগণ্যতার ক্রম অনুযায়ী হবে। অর্থাৎ

1 + 3 ** (2 * 2)
= 1 + 3 ** 4
= 1 + 81
= 82

মডুলাস অপারেটর

একটি নতুন অপারেটর মডুলাস(%, Modulus) অপারেটর। কোন সংখ্যাকে অপর একটি সংখ্যা দিয়ে ভাগ করলে যেই ভাগশেষ থাকে তা রিটার্ন করে মডুলাস অপারেটর। যেমন 10 কে 3 দ্বারা ভাগ করলে ভাগশেষ 1 থাকে।

>>> 10 % 3
1
>>> 8 % 5
3

পাইথন প্রোগ্রামিং – সূচিপত্র ( টিউটোরিয়াল সমূহ ) –


পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন ডাটা টাইপ – Numbers

পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন ডাটা টাইপ – Numbers

আমরা এখানে মূলত integer এবং float number নিয়ে আলোচনা করবো। তাছাড়া পাইথন প্রোগ্রামিং ভাষা complex, decimal এবং fraction সাপোর্ট করে, যা পরবর্তীতে আলোচনা করা হয়েছে।

Integer Numbers: পূর্ণসংখ্যার অর্থাৎ দশমিকের পর মান থাকে না সেই সংখ্যাকে Integer Numbers বলে। যেমনঃ দুইটি পূর্ণসংখ্যা 12 এবং 3 । সংখ্যা দুইটির যোগফল 12+3 = 15।

Floating Numbers: যেই সংখ্যাগুলোতে দশমিকের পর মান থাকে অর্থাৎ ভগ্নাংশকে Floating Number বলে।

Python IDLE প্রোগ্রামটি রান করে Shell এর মধ্যে নম্বর এর যোগ, বিয়োগ, ভাগ, গুণ ইত্যাদি করা যাবে। নিচে উদাহরণ এর সাহায্যে দেখানো হয়েছে:-

>>> 2 + 2

>>> 2+3

5

>>> 7-5

2

>>> 7*2

14

>>> 3/2

1.5

>>> 2**3

8

জটিল সংখ্যা (Complex Numbers)

পাইথন প্রোগ্রামিং এ পাইথন ডাটা টাইপ – Numbers হিসেবে পাইথনে জটিল সংখ্যা বিল্ডইন করে দেয়া। আমরা জানি জটিল সংখ্যায় বাস্তব এবং অবাস্তব অংশ থাকে।

একটি জটিল সংখ্যার সাধারণ প্রকাশ-

z=a+bj

যেখানে, z = জটিল সংখ্যা ; a = জটিল সংখ্যার বাস্তব অংশ ; b = জটিল সংখ্যার অবাস্তব অংশ; এবং জটিল সংখ্যার অবাস্তব অংশের পরে j বা J লিখতে হয়।

এখন Python interpreter -এ জটিল সংখ্যার যোগ, বিয়োগ, গুণ, ভাগ ইত্যাদি করা যাবে। যেমন –

>>> 2+3j+4-2j

(6+1j)

>>> (3+2j)-(1+1j)

(2+1j)

>>> (3+2j)*(1+2j)

(-1+8j)

>>> (3+2j)/(1+1j)

(2.5-0.5j)

 

পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন ডাটা টাইপ

পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন ডাটা টাইপ

পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন ডাটা টাইপ

পাইথন দিয়ে প্রোগ্রামিং শেখা র জন্য পাইথন প্রোগ্রামিং ভাষার ডাটা টাইপ গুলো জানতে হবে। পাইথন ডাটা টাইপ অনেক রকমের আছে। যেমন, Numbers, String, List, Tuple, Dictionary ইত্যাদি।

ক) Numbers

আমরা এখানে মূলত integer এবং float number নিয়ে আলোচনা করবো। তাছাড়া পাইথন প্রোগ্রামিং ভাষা complex, decimal এবং fraction সাপোর্ট করে, যা পরবর্তীতে আলোচনা করা হয়েছে।

Integer Numbers: পূর্ণসংখ্যার অর্থাৎ দশমিকের পর মান থাকে না সেই সংখ্যাকে Integer Numbers বলে। যেমনঃ দুইটি পূর্ণসংখ্যা 12 এবং 3 । সংখ্যা দুইটির যোগফল 12+3 = 15।

Floating Numbers: যেই সংখ্যাগুলোতে দশমিকের পর মান থাকে অর্থাৎ ভগ্নাংশকে Floating Number বলে।

Python IDLE প্রোগ্রামটি রান করে Shell এর মধ্যে নম্বর এর যোগ, বিয়োগ, ভাগ, গুণ ইত্যাদি করা যাবে। নিচে উদাহরণ এর সাহায্যে দেখানো হয়েছে:-

>>> 2 + 2
4
>>> 2+3
5
>>> 7-5
2
>>> 7*2
14
>>> 3/2
1.5
>>> 2**3
8

খ) Strings

যে কোন প্রোগ্রামিং ভাষার মত পাইথনেও স্ট্রিং এর গুরুত্ব অনেক। তাই স্ট্রিং সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা থাকতে হবে। পাইথনে single quotes (‘ ‘) অথবা double quotes (” “) এর যে কোন একটির মধ্যে স্ট্রিং লিখতে হয়। যেমন- নিচের মত করে স্ট্রিংগুলো তোমার Python interpreter – এ লিখে enter প্রেস করো।

>>> “Hello Python”
‘Hello Python’
>>> ‘Bangladesh’
‘Bangladesh’
>>> “Hello World’
SyntaxError: EOL while scanning string literal

গ) Lists

লিস্ট হচ্ছে একটি ক্রমে কতগুলো মান এর একটি সংকলন, যাদের একটি সাধারণ নাম থাকে। তুমি যদি সি প্রোগ্রামিং এর অ্যারের সাথে পরিচিত থাকো তাহলে লিস্ট সহজেই বুঝতে পারবে, লিস্ট সি প্রোগ্রাম এর এক মাত্রিক অ্যারের মতই, শুধু গঠন পার্থক্য বিদ্যমান। যেমন একটি লিস্ট লিখবো number, যার উপাদান গুলো 1,2,3,4,5 । পাইথনে লিস্টের উপাদানগুলো তৃতীয় বন্ধনীর মধ্যে কমা দ্বারা একটির পর আর একটি লিখতে হয়। নিচের মত করে তোমার Python interpreter – এ number = [1,2,3,4,5] লিস্টটি লিখো।

>>> number = [1,2,3,4,5]
>>> number
[1, 2, 3, 4, 5]

ঘ) Tuples

ডাটা স্ট্রাকচার হচ্ছে Tuple যার ভ্যালু পরিবর্তন করা যায় না। টাপল তৈরি করতে হয় () দিয়ে।

>>> name = (“Salam”, “Rahim”, “Karim”)
# roles = “Salam”, “Rahim”, “Karim”
>>> print(name[1])
Rahim

ঙ) Dictionaries

ডিকশনারি (Dictionary) এ উপাদানগুলোর key-value জোড়ায় জোড়ায় থাকে। পাইথনে দ্বিতীয় ব্রাকেট {} এর মধ্যে key:value জোড় এবং প্রত্যেক জোড় কে কমা(,) চিহ্ন দিয়ে আলাদা করে একটি ডিকশনারি তৈরি করা হয়।

>>> rain_percent = { 1980: ‘17%’, 1981: ‘15%’, 1982: ‘10%’}
>>> print rain_percent[1980]
17%

পাইথন প্রোগ্রামিং – সূচিপত্র ( টিউটোরিয়াল সমূহ ) –


সি প্রোগ্রামিং শেখার বাংলা বই “সহজে শিখি সি প্রোগ্রামিং” – এর ইবুক (পিডিএফ) পেতে ক্লিক করুন। বিকাশের মাধ্যমে সর্বনিম্ন ১০০ টাকা পরিশোধ করার মাধ্যমে সংগ্রহ করে নিন এই বইটি। 

পাইথন প্রোগ্রামিং – ক্যালকুলেটর হিসেবে পাইথন

পাইথন প্রোগ্রামিং – ক্যালকুলেটর হিসেবে পাইথন

ক্যালকুলেটর হিসেবে পাইথন

Python interpreter একটি সাধারণ ক্যালকুলেটর হিসেবে ব্যবহার করা যায়। Python IDLE প্রোগ্রামটি রান করে Shell এর মধ্যে নম্বর এর যোগ, বিয়োগ, ভাগ, গুণ ইত্যাদি করা যাবে। নিচে উদাহরণ এর সাহায্যে দেখানো হয়েছে:-

>>> 2 + 2

>>> 2+3

5

>>> 7-5

2

>>> 7*2

14

>>> 3/2

1.5

>>> 2**3

8

 

ভাগ (/) সবসময় ভগ্নাংশ(float) রিটার্ণ করে । পূর্ণসংখ্যা পেতে হলে (//) operator ব্যবহার করতে হবে।

 

>>> 19 / 6
3.1666666666666665
>>> 19 // 6
3

কোন সংখ্যার ঘাত বা পাওয়ার নির্ণয় –

পাওয়ার এর জন্য ** অপারেটর ব্যবহার করি। সুতরাং  32 এর জন্য পাইথন এ 3 ** 2 লিখতে হবে। Python Interpreter এ কয়েকটি সংখ্যার পাওয়ার বের করি-

>>> 3 ** 2

9

>>> 4 ** 2

16

>>> 4 ** .5

2.0

>>> 2 ** .5

1.4142135623730951

 

 

পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন চলক (Python Variable)

পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন চলক (Python Variable)

মনে করো তোমাকে কম্পিউটার দুইটি সংখ্যা ইনপুট নেয়া লাগবে। কোথায় রাখবে? মনে করো তোমাকে পানি সংরক্ষণ করতে হবে। তার জন্য দরকার একটি পাত্র। ঠিক তেমনি কম্পিউটার এ কিছু সংখ্যা ইনপুট নিয়ে তা রাখার জন্য চলক (Variable) দরকার। এখানে আমরা পাইথন চলক (Python Variable) নিয়ে আলোচনা করবো।

যখন আমরা চলক ডিক্লেয়ার করি ঐ চলক কম্পিউটার থেকে কিছু মেমরি নিয়ে নেয়। এই মেমরির গুচ্ছটাকে বোঝানোর জন্য সকল চলক এর একটা নির্দিষ্ট নাম থাকে, যা কম্পিউটার শনাক্তকারী (identifier) নামে পরিচিত, যাতে পরবর্তীতে বিভিন্ন ডাটা টাইপের চলকের মান সংরক্ষণ করা যায়। শনাক্তকারী (চলক-এর নাম) লেখার নিয়ামাবলী একটু পরে আলোচনা করা হয়েছে।

যেমনঃ Python Interpreter এ var1=5, var2=7 এবং var3=var1+var2 লেখার পর var3 লিখলে var3 এর মান 12 দেখাবে।

 

>>> var1=5

>>> var2=7

>>> var3=var1+var2

>>> var3

12

python-variable

এখানে var1, var2 এবং var3 তিনটি চলক। যেখানে var1 এবং var2 এর মধ্যে যথাক্রমে 5 এবং 7 মান রাখা হয়েছে, এভাবে চলকের পর সমান (=) চিহ্ন দিয়ে মান রাখা কে assign বলে। অর্থাৎ এখানে var1 এবং var2 এর মান assign করা হয়েছে যথাক্রমে 5 এবং 7। তারপরের লাইন, var3=var1+var2 বোঝায় var3 এর মাঝে var1 এবং var2 এর যোগফল রাখা হয়েছে। তারপর যখন পুনরায় var3 লিখে enter প্রেস করলে Python Interpreter চলক var3 এর মধ্যে রাখা মান 12(var1+var2=12) দেখায়।

শনাক্তকারী ( identifier)

প্রোগ্রাম এর উপাদানগুলো যেমন চলক, ধ্রুবক অথবা ফাংশন ইত্যাদির যেই নাম দেয়া হয় তাই  শনাক্তকারী ( identifier)। পাইথন প্রোগ্রামিং ভাষায় শনাক্তকারী ( identifier) আলফানিউমেরিক অক্ষরের সংমিশ্রণে গঠিত। এর প্রথমে বর্ণমালার একটি অক্ষর(uppercase or lowercase) বা একটি নিম্নরেখা(underline) দিয়ে শুরু হয় এবং পরে যেকোনো অক্ষর বা নম্বর বসতে পারে।

শনাক্তকারী ( identifier) নামকরনের নিয়মাবলীঃ

পাইথন চলক (Python Variable) লেখার নিয়ম সমূহ নিচে দেয়া হচ্ছে –

  • প্রথম অক্ষর অবশ্যই একটি অক্ষর (alphabet: uppercase or lowercase) অথবা নিম্নরেখা (underscore) হতে হবে। যেমনঃ var5, _var, var_1 ইত্যাদি চলক (Variable) বা ফাংশন এর নাম হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। কিন্তু 5var, %var, @var ইত্যাদি চলক বা ফাংশন এর নাম হিসেবে ব্যবহার করা যাবে না।
  • underscore বাদে অন্য কোন বিশেষ অক্ষর বা punctuation চিহ্ন ব্যবহার করা যাবে না।
  • কোন পাইথন কীওয়ার্ড এর নাম চলক হিসেবে লেখা যাবে না। যেমন- class, assert, and, or, not, if, elif, else, in, nonlocal, is, True, False, lambda, yield, None, def, del, for, from, global, continue, break, except, as, exec, while, with, try, return, pass, raise, finally, import ইত্যাদি চলক হিসেবে লেখা অবৈধ। কিন্তু And, IF, Break ইত্যাদি চলক এর নাম হিসেবে ব্যবহার করা যাবে।
  • পাইথন প্রোগ্রামিং ভাষার একটি অনন্য বৈশিষ্ট্য হল এটি case sensitive, অর্থাৎ upper case এবং lower case এর জন্য আলাদা গুরুত্ব বহন করে। তুমি লিখেছো num = 2; এখন ঐ একই প্রোগ্রামের অন্য কোথাও ঐ চলকের জন্য যদি লিখো “Num” তাহলে error বার্তা দিবে কেননা তুমি ডিক্লিয়ার করেছো num। আবার যদি print() এর জায়গায় PRINT() বা Print() লিখো তাহলেও error বার্তা দিবে।

 

পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন দিয়ে লেখা প্রথম প্রোগ্রাম

পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন দিয়ে লেখা প্রথম প্রোগ্রাম

পাইথন প্রোগ্রামিং – পাইথন দিয়ে লেখা প্রথম প্রোগ্রাম

পাইথন দিয়ে লেখা প্রথম প্রোগ্রাম – সাধারণত যে কোন প্রোগ্রামিং ভাষায় আমরা “Hello World!” প্রিন্ট করবে এমন একটি প্রোগ্রাম লিখি।তাহলে আমরা “Hello World!” প্রিন্ট করবে এমন একটি পাইথন প্রোগ্রাম দেখিঃ-

print("Hello World!")

python-hello-world

উপরের প্রোগ্রামটি রান করলে আউটপুটে আমরা উদ্ধৃতি চিহ্ন “” বাদে “Hello World!” দেখতে পাবো। এখানে print() একটি ফাংশন, print() ফাংশনের উদ্ধৃতি চিহ্ন “” এর মধ্যে যা লেখা হবে তা আউটপুটে দেখাবে। print() ফাংশনের মধ্যে উদ্ধৃতি চিহ্ন “” কোন মানের শুরু এবং শেষ বোঝায়।

পাইথন প্রোগ্রামিং – সূচিপত্র ( টিউটোরিয়াল সমূহ ) –


পাইথন IDLE ব্যবহার

পাইথন IDLE ব্যবহার:-
পাইথন IDLE দুই ভাবে ব্যবহার করা যায় যথা:-

  1. immediate mode
  2. script mode

পাইথন শেল (Python Shall) এ প্রোগ্রামিং করলে তা immediate mode বলে। এবং সাথে সাথেই প্রোগ্রাম এর ফলাফল প্রদর্শন করে। উন্ডোজ চম্পিউটারের Start এ গিয়ে python লিখে সার্চ করলে IDLE (Python 3.4 GUI – 32 bit) নামক একটি প্রোগ্রাম আসবে যা ক্লিক করলে নিচের মত শেল দেখাবে। এখানে সরাসরি প্রোগ্রাম লেখা এবং সাথে সাথেই রান করানো যায়।

python-shell
যদি নতুন একটি ফাইল খুলে তাতে পাইথন প্রোগ্রাম লিখে .py নামে সেভ করে রান করলে তা script mode বলে।

script mode এ পাইথন কোড লেখার উপায় সমূহঃ-
১) পাইথন শেল থেকে File>New File

python-script
Shortcut: পাইথন শেল উইন্ডো ক্লিক করে কী বোর্ড থেকে ctrl + N প্রেস করলে স্ক্রিপ মুডে পাইথন কোড লেখার জন্য একটি উইন্ডো চালু হবে।
২) নোটপ্যাড এ কোড লিখে সেভ করার সময় “seve as” ক্লিক করে ফাইলের আগের এক্সটেনশন (.txt) মুছে নতুন এক্সটেনশন (.py) লিখতে হবে। এরপর ফাইলটি কেটে যেই ফোল্ডারে সেভ করেছো ওখান থেকে ফাইলটি খুললে script mode এ পাইথন কোড চালু হবে।
বিঃদ্রঃ যদি তোমার কম্পিউটার এ পাইথন এর অফিসিয়াল ওয়েব সাইট থেকে যেই পাইথন সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে ইন্সটল করতে বলা হয়েছিলো তা না করলে উপরে বর্ণিত পাইথন কোড script mode এ চালু হবে না।

পাইথন IDLE ডাউনলোড

পাইথন IDLE ডাউনলোড

পাইথন IDLE ডাউনলোড
পাইথন IDLE ডাউনলোড করার জন্য পাইথনের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে।

পাইথনের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের লিংক – https://www.python.org

এই ওয়েবসাইট থেকে পাইথন IDLE ডাউনলোড করে তোমার কম্পিউটারে ইন্সটল করতে হবে।

তারপর তুমি পাইথন প্রোগ্রামিং ভাষায় কোড লেখা এবং রান করতে পারবে।

পাইথন প্রোগ্রামিং –  টিউটোরিয়াল সমূহ –

পাইথন প্রোগ্রামিং ভাষা

পাইথন প্রোগ্রামিং ভাষা

পাইথন প্রোগ্রামিং ভষা

পাইথন প্রোগ্রামিং ভাষা (Python Programming) একটি object-oriented উচ্চস্তরের প্রোগ্রামিং ভাষা। ১৯৯১ সালে গুইডো ভ্যান রোসাম এটি প্রথম প্রকাশ করেন। পাইথন প্রোগ্রামিং ভাষা -তে প্রোগ্রামের পঠনযোগ্যতা ও প্রোগ্রামার এর সহজবোধ্যতার উপর বেশি গুরুত্ব দেয়া হয়েছে।

পাইথন (Python) এর ব্যবহার

  1. সাধারণত দ্রুত সফটওয়ার নির্মাণের জন্য পাইথন ব্যবহৃত হয়।
  2. ওয়েব এপ্লিকেশনে পাইথন প্রোগ্রামিং ভাষা এর ব্যবহার উল্লেখযোগ্য।
  3. পাইথন একটি বিস্ময়কর এবং শক্তিশালী প্রোগ্রামিং ভাষা, ব্যবহার করা সহজ ( পড়তে ও লিখতে )। পাইথন প্রোগ্রামিং এবং Raspberry Pi (রাস্পবেরী পাই) যে কোন প্রজেক্টকে  বাস্তব জগতের সাথে সুন্দর ভাবে সংযোগ স্থাপন করতে পারে।
  4. বিভিন্ন বড় বড় প্রকল্পে পাইথন এর ব্যবহার উল্লেখ যোগ্য। যেমনঃ জোপ অ্যাপ্লিকেশন সার্ভার, এমনেট ডিস্ট্রিবিউটেড ফাইল স্টোর, ইউটিউব এবং মূল বিটটরেন্ট ক্লায়েন্ট ইত্যাদিতে পাইথন এর উল্লেখযোগ্য ব্যবহার রয়েছে।যে সমস্ত বড় প্রতিষ্ঠান পাইথন ব্যবহার করে তাদের মধ্যে গুগল ও নাসা উল্লেখযোগ্য।

পাইথন কেনো শিখবো ?

বর্তমানে অনেক পরিচিত উচ্চস্তরের প্রোগ্রামিং ভাষা আছে যেমন সি, সি++, পি-এইচ-পি, জাভা ইত্যাদি। তাহলে নতুন করে কেনো পাইথন শেখা জরুরি ?

সবচেয়ে সহজ প্রোগ্রামিং ভাষা গুলোর মধ্যে পাইথন অন্যতম বৈশিষ্ট্য ধারণ করে। খুব সহজেই পাইথন প্রোগ্রামিং ভাষা আয়ত্ত করা যায়, তাছাড়া পাইথন একটি শক্তিশালী প্রোগ্রামিং ভাষা । বর্তমানে অনেক প্রফেশনাল প্রোগ্রামারগণ পাইথন ব্যবহার করে থাকেন বিভিন্ন ক্ষেত্রে। কম্পিউটার এর সফটওয়্যার থেকে শুরু করে, ওয়েব অ্যাপলিকেশন, অনলাইন গেম তৈরি, এম্বেডেড সিস্টেম এর প্রোগ্রামিং করতেও বর্তমানে পাইথন এর ব্যাবহার বৃদ্ধি পাচ্ছে।

ওয়েব ডিজাইনে পাইথন প্রোগ্রামিং

যারা ওয়েব ডিজান, বিশেষত ওয়েব অ্যাপ ডেভেলপ করতেচান তাদের জন্য পাইথন অনেক উপযোগী একটি প্লাটফর্ম। পাইথন জ্যাঙ্গো (ইংরেজীঃ Django) ব্যবহার করে অনেক সহজেই ওয়েব অ্যাপ তৈরি করা যায়।

জ্যাঙ্গো - পাইথন প্রোগ্রামিং
জ্যাঙ্গো – পাইথন প্রোগ্রামিং

পাইথন ভার্শন

পাইথনের দুইটি ভার্শন এখন সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয়ঃ-

  1. পাইথন 2.x
  2. পাইথন 3.x

পাইথন প্রোগ্রামিং

পাইথন প্রোগ্রামিং এ “Hello World” প্রোগ্রাম নিম্ন রূপ –

print(“Hello World!”)

পাইথন 2.x এবং পাইথন 3.x এর মাঝে কিছু পার্থক্য

পাইথন 2.x পাইথন 3.x
print() is a statement in Python 2 print() is a function in Python 3
raw_input() input()
x = input(“Enter a number: “) x = eval(input(“Enter a number: “))

 

পাইথন প্রোগ্রামিং – সূচিপত্র ( টিউটোরিয়াল সমূহ ) –


সি প্রোগ্রামিং শেখার বাংলা বই “সহজে শিখি সি প্রোগ্রামিং” – এর ইবুক (পিডিএফ) পেতে ক্লিক করুন। বিকাশের মাধ্যমে সর্বনিম্ন ১০০ টাকা পরিশোধ করার মাধ্যমে সংগ্রহ করে নিন এই বইটি।