তুল্য রোধ – ২য় পাঠ

তুল্য রোধ – ২য় পাঠ

আচ্ছা,  শুরুতে স্কুলে পড়তে আমার কিছু ভুল ধারণা ছিল সিরিজ প্যারালাল কম্বিনেশন নিয়ে,   সেগুলা একটু দেখি।

১। সমান্তরাল বা প্যারালাল কানেকশন মানে বুঝি রোধ গুলা আক্ষরিক অর্থেই একটার সাথে আরেকটা সবসময়ই সমান্তরাল ভাবে আঁকা থাকবে  ,  ছবির মত।

 

IMG_20140827_225814

এইরকম চিন্তার পেছনে দায়ী ছিল ৯-১০ এর বইয়ে থাকা সার্কিট গুলার ছবি। কেন জানি না সব গুলা সমান্তরালে থাকা রোধই আঁকা হত প্যারালাল কিছু লাইন বরাবর আর আমি ধরে নিতাম প্যারালাল লাইনে থাকলেই বুঝি প্যারালাল কম্বিনেশন হয়। নতুন এডিশনের একটা বই কিনলাম কিছু দিন আগে,  এর মধ্যেও সেই আগের মতই সমান্তরাল করে আঁকা রোধ গুলো।

সুতরাং আমার সেই কন্সেপ্টটা ভুল ছিল।

কত গুলা রোধ সমান্তরালে আছে কিনা সেটা বুঝার একমাত্র রাস্তা হচ্ছে যে রোধ গুলার কোন সাধারণ প্রান্ত আছে কিনা সেটা চেক করা।

যেমন নিচের সার্কিটটা। এইখানে রোধ গুলা একটার সাথে আরেকটা কোণ করে আছে ,  আর তাদের অপর প্রান্ত একটা বৃত্তাকার বর্তনীর অংশ হিসেবে আছে। এভাবে দেখে কি বুঝতে পারছো যে এই রোধ গুলা সব সমান্তরালে আছে ?

IMG_20140827_225446

দেখো,  এই ৪টার এক প্রান্ত হচ্ছে বৃত্তের কেন্দ্রে।  আর অন্য প্রান্ত গুলা পরিধির উপরে আছে। কিন্তু দেখ,  পরিধির উপর থাকা প্রান্ত গুলার মধ্যে কিন্তু অন্য কিছু নাই ,  তাই এই প্রান্ত গুলাও আসলে একই প্রান্ত। এবার এই সার্কিটটা দেখো,

IMG_20140827_230326

এরা যে সমান্তরালে আছে   ,  বুঝতে পারছো?

স্কুলের পরীক্ষায় এত হাবিজাবি জিনিস  আসবে না ,  এগুলা শুধু সমান্তরাল এর কন্সেপ্ট সম্পর্কে আইডিয়া নেয়ার জন্য দেখছি।

এইবার এইটা দেখো,

IMG_20140827_230523

এইখানে বাম দিকের গুলো সিরিজ আর মাঝে প্যারালাল।

এইবার এইগুলা দেখো, এইখানের রোধ গুলা কি রকম সমবায়ে আছে চিন্তা করে দেখো।

12

 

শর্ট সার্কিট :

11

 

শর্ট সার্কিট মানে সহজ কথায় সার্কিটের মধ্যে এমন ২টা বিন্দু যাদের মধ্যে কোন সার্কিট এলিমেন্ট মানে রোধ / কোষ / লোড নাই। মানে সিম্পলি,  ২টা পয়েন্ট সরাসরি যুক্ত থাকলে শর্ট সার্কিট।

এইটা নিয়ে যা হইতে পারে তা হচ্ছে  যে প্রশ্নে হয়ত খুব হিজিবিজি কিছু রোধ এর কম্বিনেশন দিল,  কিন্তু কোন এক জায়গায় একটা শর্ট সার্কিট দিয়ে দেয়া আছে। সেইটা আমলে নিলে পুরা সার্কিটের এর হাবিজাবি অনেক গুলা রোধ দেখব যে কাজেই লাগছে না !

13

এইখানে A আর B পয়েন্ট এর মধ্যে ৩টা রোধ আছে। কিন্তু দেখো,  এই ২টা পয়েন্টকে আবার একটা সরাসরি লাইন দিয়ে কানেক্ট করা আছে। মানে শর্ট সার্কিট!  দেখো,  যদি A থেকে B তে যাওয়ার জন্য ঝামেলা মুক্ত – as in রোধ মুক্ত – পথ থাকে তাহলে কারেন্ট কিন্তু সেই পথেই চলে যাবে।  তার মানে A আর B বিন্দুর মধ্যে তুল্য রোধ শুন্য।

এই সার্কিটে তাইলে কি হবে?

14

এইবার এইগুলা করে ফেলতে পারবা না ? A আর B প্রান্তের মধ্যে তুল্য রোধ বের করতে হবে ।

IMG_0497                IMG_0495

 

পারা যাবে মনে হয়।

আচ্ছা , এবার শ্রেণি আর সমান্তরাল সমবায় একসাথে করতে চাইলে কেমন হতে পারে দেখি। এই অংকটা জাহিদুর রহমান স্যারের বই থেকে নেয়া , কলেজের পদার্থবিজ্ঞান ২য় পত্র বই।৩টা রোধ , সবার মান ১ ওহম করে। তাদেরকে কিভাবে সংযুক্ত করলে তুল্য রোধ হবে ২/৩ রোধ ?

৩ টা রোধ , ১ ওহম করে মান। সবাইকে যদি সমান্তরালে যুক্ত করি তাহলে তুল্য রোধ হবে ১/৩ ওহম , তাইনা ? আবার যদি সবাইকে শ্রেণিতে লাগাই তাহলে হবে ৩ ওহম।  কিন্তু কিভাবে লাগালে তুল্য ২/৩ ওহম হতে পারে ?

 

তুল্য রোধ – ২য় পাঠ

3278 Total Views 1 Views Today

for “তুল্য রোধ – ২য় পাঠ”

Sifat Akib

says:

তুল্য রোধ নিয়ে লেখাটা ভালো, স্বপ্ন পূরণে এইরকম অনেক মজার মজার বেসিক কনসেপ্ট এর বিষয় গুলো ভালো লাগে পড়তে।
ধন্যবাদ রাতুল ভাইয়া দোয়া করবেন যেনো বুয়েটে চান্স পাই

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *